রান তাড়া করে খেলায় ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে জানে নাইট রাইডার্স

Written by SNS May 23, 2024 12:07 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি— ইতিমধ্যেই এবারের আইপিএল ক্রিকেট ফাইনালে পেঁৗছে গেছে শ্রেয়স আইয়ারের কলকাতা নাইট রাইডার্স৷ প্লে অফ ম্যাচের প্রথম খেলায় কলকাতা দল যেভাবে দাপট দেখিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে দিল তাতে স্পষ্ট হয়ে উঠছে চ্যাম্পিয়ন হবার দাবিদার হিসাবে পয়লা নম্বরে রয়েছে৷ শুধু তাই নয় যেভাবে বিপক্ষ দলের বিরুদ্ধে কলকাতা দল খেলে চলেছে তা দেখে মনে হচ্ছে প্রতিপক্ষ দল কোনও ভাবেই সুবিধা আদায় করে নিতে পারবে না৷ ব্যাটে ও বলে কলকাতা দল সবাইকে ছাপিয়ে .যাচ্ছে৷ বিশেষ করে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে কলকাতা যে খেলাটা খেলেছে তা অবিশ্বাস্য৷ কলকাতা একেবারে খেলায় হারিয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ হায়দরাবাদকে৷ এককথায় বলা যায় কলকাতার ৮ উইকেটে জয়ের পিছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা নিয়েছেন বোলার মিচেল স্টার্ক৷ তাঁর দুর্ধর্ষ বোলিংয়ের কাছে হায়দরাবাদের খেলোয়াড়রা মাথা তুলে দাঁড়াতেই পারেননি৷ যার ফলে হায়দরাবাদের ইনিংস শেষ হয় মাত্র ১৫৯ রানে৷

এমনকি ২০ ওভার তারা খেলতেও পারেনি৷ তার জবাবে কলকাতা খেলতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৩.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান করে জয়ের হাসিতে উজ্জ্বল হয়ে ওঠে৷ দলের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার ৫৮ রানে ও ভেঙ্কটেশ আয়ার ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন৷ এই খেলা দেখে অনেকেই বলতে শুরু করেছেন ফাইনালে যে দলই তাঁদের মুখোমুখি হোক না কেন খুব সহজেই উড়িয়ে দিতে পারবে৷ ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা বলতে শুরু করেছেন কেকেআর দল যদি রান তাড়া করে, সেক্ষেত্রে তারা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে জানে৷ এবারের আইপিএল ক্রিকেটে এমনই অদ্ভুত রেকর্ড দেখতে পাওয়া গেছে কেকেআর দলের কাছ থেকে৷ আসলে রান তাড়া করাটা তাদের কাছে হয়তো বেশি করে চ্যালেঞ্জ হিসাবে খেলা করে৷ তাই দলের ক্রিকেটাররা আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে স্কোরবোর্ডকে রান উপহার দিয়ে থাকেন৷ দেখতে পাওয়া গিয়েছে রান তাড়া করে কোনও ম্যাচেই কেকেআর হারেনি৷ যে কটি ম্যাচ তাড়া করে কেকেআর জয় পেয়েছে সেই ছবি দেখলে আরও দেখতে পাওয়া যাচ্ছে অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার সেইসব ম্যাচে নট আউট থেকে গেছেন৷ প্লে অফ ম্যাচে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে অর্ধশত রান করে (অপরাজিত) দলকে জিতিয়ে দিয়েছেন৷ রান তাড়া করার ক্ষেত্রে আন্দ্রে রাসেল ও রামনদীপ সিংকে ব্যাট করতে নামতে হয়নি৷ রান তাড়া করার ক্ষেত্রে যে জয় এসেছে তাতে ১৭ ওভারের বেশি খেলতে হয়নি শ্রেয়স আইয়ারদের৷ অর্থাৎ হেসে খেলেই তাঁরা ম্যাচ জিতে গেছে৷

রান তাড়া করে ম্যাচ জেতার কৌশলে কেকেআর দল সব সময় পাওয়ার প্লের ফিল্ডিংয়ের বিধি নিষেধের ফায়দা তুলে নেয়৷ আসলে পাওয়ার প্লের ৬ ওভার ৩০ গজের মধ্যে মাত্র ৪ জন খেলোয়াড় ফিল্ডিং করতে পারেন৷ সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে দ্রুত ব্যাটসম্যানরা চার ছয় মেরে বোলারদের চাপে ফেলে দেবার চেষ্টা করেন৷ আর এই ব্যাপারে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে কেকেআর দল৷ পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে ৬০ বা তার বেশি রান তুলে নিচ্ছে কেকেআর দল৷ আগামী রবিবার ফাইনালে কেকেআর দল কি কৌশল নিয়ে সেটাও দেখবার বিষয়৷ দর্শকরাও সেই খেলা দেখবার জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন৷