ভারত-কানাডার খেলাও পরিত্যক্ত

Written by SNS June 16, 2024 5:02 pm

ফ্লোরিডা, ১৬ জুন:  ফ্লোরিডায় ২০ ঘন্টা সময় পেয়েও মাঠ খেলার উপযুক্ত করা গেল না কেন! এর উত্তর কে দেবে! আমেরিকা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের কর্তারা, নাকি আইসিসি! নিউ ইয়র্কে জঘন্য উইকেট বানিয়ে ক্রিকেটারদের মাঠে নামাতে বাধ্য করা হল। ফ্লোরিডায় বৃষ্টির কারণে মাঠ বেহাল হয়ে গিয়েছিল। আমেরিকা ও আয়ারল্যান্ডের ম্যাচ শুক্রবার করা গেল না। কিন্তু তারপর ভারি আউটফিল্ড খেলার উপযুক্ত করে তুলতে অনেক সময় পেয়েও কেন খেলা শুরু করা গেল না। আইসিসি-কে কি এরপরও হাত গুটিয়ে বসে থাকতে হবে! ভারতীয় দলের কাছে এটা কোনও সমস্যা নয়। তারা আগেই সুপার আটে খেলা পাকা করে ফেলেছে। কানাডা এই ম্যাচের আগে বিদায় নিয়েছে। দুটি দলের কাছে ম্যাচটি নিয়মরক্ষার ছিল।

তবে সুপার আটে খেলতে নামার আগে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ ছিল রোহিতদের কাছে। কিন্তু সেটা তাঁরা পেলেন না। আর সব থেকে হতাশ হতে হল খেলা দেখতে আসা ক্রিকেট ফ্যানদের কথা ভেবে। নিউ ইয়র্ক থেকে অনেকে খেলা দেখতে এসেছিলেন। তাঁরা হতাশ হলেন। তাঁদের টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হলেও সব কি মুশকিল আসান হল! এমন জায়গায় কেন আইসিসি বিশ্বকাপের মতো বড় ইভেন্টের আসর করতে গেল!

এবারের টুর্নামেন্টে একটা ছবি পরিষ্কার হয়ে গেল যে, আমেরিকার ক্রিকেট দল নিজেদের তৈরি করে নিতে পারলেও সংগঠকরা অনেকটা পিছিয়ে। তারা নিজেদের সঠিক জায়গায় নিয়ে যেতে পারল না। না হলে এমন অবস্থা হবে কেন! সুনীল গাভাসকার বলছিলেন, এটা ভেবে হতবাক লাগছে যে, ভারী আউটফিল্ড থেকে নিজেদের বাঁচিয়ে খেলা শুরু করা যেত। বৃষ্টির হাত থেকে মাঠ বাঁচাতে অনেক উপায় ছিল। পুরো মাঠ কেন কভার করা হল না! তা হলে তো এই সমস্যার সৃষ্টি হত না। এটা সংগঠকদের কে বোঝাবে! আইসিসি নিজেরা উদ্যোগ নিয়ে এই ব্যাপারে আগে ভাগে বুদ্ধি দিতে পারত। সেটা তারা করল না কেন!

এদিন খেলা শুরু হওযার আগেই জানিয়ে দেওয়া হয় যে, এক ঘন্টা পর মাঠ দেখতে যাবেন আম্পায়াররা। তারপর ঠিক হবে কখন খেলা শুরু হবে। তো একঘন্টা পর আম্পায়াররা মাঠে গেলেন। তাঁরা পুরো মাঠ ঘুরে দেখলেন। হঠাৎ দেখা গেল, মাঠে থাকা ভারতীয় দলের সাপোর্ট স্টাফরা দৌড়ে ড্রেসিংরুমের দিকে আসছেন। তাদের দৌড় দেখে মনে হয়েছিল তড়িঘড়ি দলকে বার্তা দিতে তাঁরা আসছেন। কিন্তু সেটা তো দেখা গেল না। বরং চোখে পড়ল সাইট স্ক্রিনের পিছনে দু’দলের ক্রিকেটাররা এসে হাত মিলিয়ে আবার ড্রেসিংরুমে ঢুকে পড়লেন। তার আগে রোহিত, বিরাট ও পান্ডিয়া মাঠে নেমে আম্পায়ারদের সঙ্গে কথা বলে পুরো ব্যাপারটা বোঝার চেষ্টা করেন।

শোনা গিয়েছিল, ঘন্টা তিনেক অপেক্ষা করে খেলা শুরু করতে পারলে পাঁচ ওভারের ম্যাচ হতে পারে। কিন্তু ম্যাচ রেফারি ও আম্পায়াররা সেই সময় দিতে রাজি ছিলেন না। তাই তিন ঘন্টা অপেক্ষা না করে তারা খেলা পরিত্যক্ত বলে ঘোষণা করে দিলেন। হয়তো এটাও হতে পারে যে, ভারতীয় দল সুপার আটের কথা ভেবে এই মাঠে ঝুঁকি নিয়ে নামতে রাজি ছিল না। তাই সেই পথে পা বাড়ালেন না আম্পায়াররা। রবিবার এই মাঠে পাকিস্তান- আয়ারল্যান্ড নিয়মরক্ষার ম্যাচ খেলতে নামবে। এখন দেখার বিষয়, সেই ম্যাচ শুরু করা যায় কিনা।

৪ ম্যাচে ৭ পয়ন্ট নিয়ে ভারতীয় দল গ্রুপ লিগের খেলা শেষ করল। রবিবার তারা ফ্লোরিডা থেকে বার্বাডোজ উড়ে যাবে। ২০ জুন তারা খেলবে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। শোনা যাচ্ছে, সেখানেও বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। এখন দেখার বিষয়, ভারতের সামনে বৃষ্টি আবার বাধা হয়ে দাঁড়ায় কিনা।