হেভিওয়েটদের লড়াইয়ে সরগরম শেষ দফা

Written by SNS June 2, 2024 1:58 pm

দিল্লি, ১ জুন— শনিবার দেশের ভোট উৎসবের ঢাকে শেষ কাঠি পড়ল৷ অর্থাৎ অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের এদিন সপ্তম ও শেষ দফা ভোটপর্ব অনুষ্ঠিত হয়৷ এদিন সকাল সাতটায় এই দফার ভোটগ্রহণ শুরু হয়৷ চলে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত৷ দেশের আটটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৫৭টি লোকসভা আসনে ভোটগ্রহণ হয়৷ সপ্তম দফায় বিহারের আটটি, হিমাচল প্রদেশের চারটি, ঝাড়খণ্ডের তিনটি, ওড়িশার ছয়টি, পাঞ্জাবের ১৩টি, উত্তর প্রদেশের ১৩টি, পশ্চিমবঙ্গের ৯টি এবং চণ্ডীগড়ের একটি আসনে ভোট হচ্ছে৷ এই ৫৭ আসনে লড়াইয়ে রয়েছেন ৯০৪ জন প্রার্থী৷

শেষ দফায় মোট ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১০ কোটি ৬ লাখ৷ এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ২৪ লাখ, নারী ভোটার রয়েছে ৪ কোটি ৮২ লাখ৷ আর তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ৩ হাজার ৫৭৪ জন৷ ভোটগ্রহণ হচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)৷

শেষ দফার নির্বাচনকে শান্তিপূর্বক শেষ করতে ৫৭ আসনে মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যকে৷ থাকছে কুইক রেসপন্স টিমও৷ জানিয়ে রাখি, আগামী মঙ্গলবার অর্থাৎ ঠিক দুদিন পরে ৪ তারিখ গণদেবতারা কাকে বেছে নিলেন তা জানা যাবে ভোট গণনার মাধ্যমে৷
কমিশন সূত্র অনুসারে এদিন বিকেল ৫ পর্যন্ত দেশের সাত রাজ্য এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভোটদানের হার ৫৮.৮৯ শতাংশ ছিল৷ বাংলার নয় আসনে গড় ভোটদানের হার ৬৯.৮৯ শতাংশ৷ ভোটদানের নিরিখে এগিয়ে হিমাচল প্রদেশ ৮২.৯২ শতাংশ৷ এ ছাড়াও বিহারে ৬৯.২৫ শতাংশ, চণ্ডীগডে় ৬৭.০৩ শতাংশ, ঝাড়খণ্ডে ৭২.৫৫ শতাংশ, ওডি়শায় ৫৯.৬৪ শতাংশ, পঞ্জাবে ৬৯.৯১ শতাংশ এবং উত্তরপ্রদেশে ৭৬.০২ শতাংশ ভোট পড়ল৷

ভোট বিশেষজ্ঞদের মোট ৭ দফার মধ্যে শেষ দফাটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছিল৷ কারণ এই দফায় এমন কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থী রয়েছেন যাদের নির্ভর করে বেশ কয়েকটি বড় মাপের রাজনৈতিক দলের মানসম্মান নির্ভর করছে৷ এর মধ্যে সবচেয়ে নজরকাড়া প্রার্থী হলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তিনি বিজেপির মুখও বটে৷ টানা তৃতীয়বার উত্তর প্রদেশের বারানসির সংসদ সদস্য হওয়ার লড়াইয়ে নেমেছেন তিনি৷ এই আসনে মোদির প্রতিপক্ষ উত্তর প্রদেশ কংগ্রেসের প্রধান অজয় রাই৷

তবে মনে করা হচ্ছে এবারও মোদির পাল্লা ভারি কারণ তাঁর বিরুদ্ধে বিরোধী দল কংগ্রেসের অজয় রাই ২০১৪ ও ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনেও মোদির বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছিলেন৷ আর সেই দুটি নির্বাচনেই মোদির কাছে হেরেছেন অজয়৷

এবারের দফায় লড়াইয়ে মোদি ছাড়াও বিজেপির আরও কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থী রয়েছেন৷ হিমাচল প্রদেশের মান্ডি আসনে লড়ছেন বলিউড তারকা কঙ্গনা রানাউত৷ গোরক্ষপুরে বিজেপির হয়ে লড়বেন ভোজপুরী তারকা রবি কিষন৷ হিমাচলের হামিরপুর থেকে দাঁড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর৷
তবে শুধু বিজেপি নয় এই দফতায় কংগ্রেস, তৃণমূলের সহ বিরোধী দলগুলোরও একঝাঁক তারকা প্রার্থীর ভাগ্যও নির্ভর করছে৷ তাদের মধ্যে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তৃতীয়বারের জন্য সংসদ সদস্য হতে তিনি ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্র থেকে লড়ছেন৷

অন্যদিকে, পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নি লড়ছেন জলন্ধর কেন্দ্রে৷ পাটলিপুত্রের ভোট ময়দানে রয়েছেন লালুপ্রসাদ যাদবের মেয়ে মিসা ভারতী৷ সপ্তম দফায় দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীও নজর কাড়বেন বলে মনে করা হচ্ছে৷

পশ্চিমবঙ্গের আসানসোল কেন্দ্র থেকে ভোজপুরী গায়ক পবন সিংকে প্রার্থী করেছিল বিজেপি৷ কিন্ত্ত প্রবল বিতর্কের পর ওই কেন্দ্র থেকে সরে দাঁড়ান তিনি৷ পরে বিহারের কারাকাট কেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন৷ এছাড়া খাদুর সাহিব কেন্দ্র থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন অমৃতপাল সিং৷ খালিস্তানপন্থী কার্যকলাপে জড়িয়ে আপাতত তিনি কারাবন্দি৷

পশ্চিমবঙ্গের দমদম, বারাসাত, বসিরহাট, জয়নগর, মথুরাপুর, ডায়মন্ড হারবার, যাদবপুর, কলকাতা উত্তর এবং কলকাতা দক্ষিণে ভোট হচ্ছে৷

পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও উত্তরপ্রদেশের ১৩টি, বিহারের আটটি, ওডি়শায় ছ’টি এবং ঝাড়খণ্ডের তিনটি আসনে ভোট চলছে৷ পঞ্জাবের ১৩ এবং হিমাচলের চারটি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে সবক’টি এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল চণ্ডীগডে়র এক মাত্র আসনে ভোট হচ্ছে এই দফায়৷শেষ দফার ভোট দেশেশনিবার সপ্তম দফায় ৫৭ আসনে ভোটগ্রহণ পর্বের মাধ্যমে শেষ হতে চলেছে অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচন৷ পশ্চিমবঙ্গের ৪২টির মধ্যে ন’টি লোকসভা আসন৷