বারাণসীতে প্রয়াত রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা অনুষ্ঠানের প্রধান পুরোহিত লক্ষ্মীকান্ত দীক্ষিত

Written by SNS June 22, 2024 6:35 pm
অযোধ্যা , ২২ জুন – অযোধ্যার রামমন্দিরে রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা অনুষ্ঠানের প্রধান পুরোহিত লক্ষ্মীকান্ত দীক্ষিত প্রয়াত হলেন। শনিবার বারাণসীতে ৮৬ বছর বয়সে প্রয়াত হন লক্ষ্মীকান্ত দীক্ষিত। প্রবীণ বৈদিক পণ্ডিতের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ । এক্স হ্যান্ডেলে এক শোকবার্তায় যোগী লেখেন, “কাশীর বিশিষ্ট পণ্ডিত এবং শ্রী রাম জন্মভূমি প্রাণ প্রতিষ্ঠার প্রধান পুরোহিত, বেদমূর্তি আচার্য শ্রী লক্ষ্মীকান্ত দীক্ষিতজির প্রয়াণ আধ্যাত্মিক ও সাহিত্য জগতের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।” যোগী লেখেন, সংস্কৃত ভাষা এবং ভারতীয় সংস্কৃতিতে অবদানের জন্য  আচার্য দীক্ষিতকে সবসময় স্মরণ করা হবে ।
 
প্রধান পুরোহিতের মৃত্যুর খবর পেয়ে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এক্স বার্তায় তিনি বলেন, “আমি দেশের বিশিষ্ট পণ্ডিত এবং সংবেদ স্কুলের যজুর্বেদ শিক্ষক লক্ষ্মীকান্ত দীক্ষিতজির মৃত্যুর দুঃখজনক সংবাদ পেয়েছি। দীক্ষিতজি কাশীর ঐতিহ্যশালী পণ্ডিতদের মধ্যে একজন বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব ছিলেন।”
 
পুরোহিতের সঙ্গে তাঁর সাক্ষাতের কথা স্মরণ করে, প্রধানমন্ত্রী মোদি আরও লেখেন: “কাশী বিশ্বনাথ ধাম এবং রাম মন্দিরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সময় আমি তাঁর বিশেষ সান্নিধ্য লাভ করেছিলাম। তাঁর চলে যাওয়া সমাজের জন্য একটি অপূরণীয় ক্ষতি।”
 
পণ্ডিত লক্ষ্মীকান্ত মথুরানাথ দীক্ষিত, প্রধান পুরোহিত যিনি এই বছরের জানুয়ারিতে উত্তর প্রদেশের অযোধ্যার রাম মন্দিরে রাম লালা প্রাণপ্রতিষ্ঠা অনুষ্ঠানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। বারাণসীর এই বৈদিক পণ্ডিত , তিনি হিন্দু সম্প্রদায়, সংস্কৃত ভাষা এবং ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি তাঁর ভক্তির জন্য সুপরিচিত ছিলেন। পণ্ডিতকে অযোধ্যায় অভিষেক অনুষ্ঠানের জন্য বেদের শাখা থেকে ১২১ জন পণ্ডিতের একটি দলের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল। বলা হয় যে তিনি ১৭ শতকের বিশিষ্ট কাশী পণ্ডিত গাগা ভট্টের বংশধর ছিলেন। পণ্ডিত গাগা ভট্ট প্রায় ৩৫০ বছর আগে ১৬৭৪ সালে ছত্রপতি শিবাজি মহারাজের রাজ্যাভিষেকের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।