সুশান্ত সিং রাজপুতকে খুন করেছে দাউদের গ্যাং, বিস্ফোরক দাবি প্রাক্তন ‘র’ অফিসারের

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সঙ্গে এবার আন্ডারওয়ার্ল্ডের যোগসুত্রের সন্দেহ প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন র’ অফিসার এন কে সুদ।

Written by SNS New Delhi | July 13, 2020 2:42 am

সুশান্ত সিং রাজপুত (Photo: Twitter/@itsSSR)

বলিউডের নবীন তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার খবরে শিউড়ে উঠেছে গোটা দেশ। অভিযোগ উঠেছে এই হত্যার নেপথ্যে রয়েছে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তাড়কাদের প্রভাব এবং প্রভাবশালীদের জোর। গত কয়েক দিন ধরে সোশাল মিডিয়া বয়কট বলিউড, ডোন্ট ওয়াচ স্টার কিডস ফিল্মস ধরনের প্রচারও চলেছে। এরই মধ্যে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছেন প্রাক্তন র’ অফিসার এন কে সুদ।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সঙ্গে এবার আন্ডারওয়ার্ল্ডের যোগসুত্রের সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তিনি। তাঁর দাবি, একেবারে নিখুত ছকে খুন করা হয়েছে সুশান্তকে। সুদের দাবি, ডন দাউদ ইব্রাহিম এখন মুম্বইয়ে না থাকলেও রাশ এখনও তার দখলেই রয়েছে। পেশিবল, অর্থ ও উচ্চপদে আসীনদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের মাধ্যমে দাউদ এখনও মুম্বই ফিল্ম জগৎকে নিয়ন্ত্রণ করে।

এ কথা উল্লেখ করে সুদের সন্দেহ, দাউদের কোনও শাকরেদের হাতে সুশান্তের খুন হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। তাঁর দাবি, গত কয়েক মাস ধরেই সুশান্তকে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। এজন্য তিনি প্রায় ৫০ বার সিম কার্ড বদলেছিলেন। কেউ তাঁকে খুন করে ফেলতে পারে, এই আশঙ্কায় অভিনেতা গাড়িতেও ঘুমাতেন বলে দাবি করেছেন তিনি।

সুদের দাবি, পেশাদাররা সুশান্তকে খুন করেছে। তার যুক্তি অভিনেতার মৃত্যুর আগেরদিন সিসিটিভি ক্যামেরা বন্ধ করে দেওয়া থেকে শুরু করে ডুপ্লিকেট চাবি হারিয়ে যাওয়ার মতো অনেক তথ্য প্রমাণ রয়েছে যা ইঙ্গিত করছে কেউ অত্যন্ত ঠাণ্ডা মাথায় সুশান্তর খুনের পরিকল্পনা করেছে। বলিউডের রাশ যে এখনও দাউদের হাতেই রয়েছে, তারই প্রমাণ সুশান্তের মৃত্যু।

তিনি বলেন, সুশান্তর মৃত্যু বলিউডের মেরুকরণকে স্পষ্ট করে দিয়েছে। এই গোটা ইন্ডাস্ট্রিটাই একটা ব্যবসা এবং এখানে ইনসাইডার-আউটসাইডার পলিসিই চলে আসছে। বিহারের মুজফফরপুরে বলিউডের আটজন প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুর কারণ হিসাবে একতা কাপুর, সলমন খান, করণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালি, আদিত্য চোপড়া, সাজিদ নদিয়াদওয়ালা, ভূষণ কুমারদের বিরুদ্ধে আইনজীবী সুধীরকুমার ওঝা মামলা করেছেন।