মোদির সভায় পকোড়া বিক্রি করে জেলে গেলেন ছাত্র

বেকারত্বের প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মােদির সভায় স্নাতক উত্তীর্ণ পােশাক পরে পকোড়া বিক্রি করলেন বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রী। বিক্রি করার সময় তারা মুখে বলতে থাকেন ‘মােদিজি কে পকোড়ে’।

Written by Supratik Biswas Chandigarh | May 16, 2019 6:19 pm

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (File Photo: IANS)

প্রতি বছর দেশে ১২ লক্ষ বেকারকে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারেনি মােদি শাসিত কেন্দ্রের এনডিএ সরকার।

বেকারত্বের প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মােদির সভায় স্নাতক উত্তীর্ণ পােশাক পরে পকোড়া বিক্রি করলেন বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রী। বিক্রি করার সময় তারা মুখে বলতে থাকেন ‘মােদিজি কে পকোড়ে’। দেশে বেকারত্বের এই অভিনব প্রতিবাদ জানিয়ে গ্রেফতার হয়েছেন ১২ জন কলেজ ছাত্র।

ছাত্রদের গ্রেফতার করার পর সেক্টর ৩৪-এর স্টেশন হাউস অফিসার বলদেব কুমার বলেছেন, ‘আমরা ১০-১২ জন কলেজ ছাত্রছাত্রীকে হেফাজতে নিই। যদিও মিছিলের পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার চণ্ডীগড়ে বিজেপি প্রার্থী কিরণ খেরের হয়ে প্রচার করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মােদি। তাঁর সমাবেশের আগে সভাস্থলের পাশেই স্নাতক স্তরের কালাে পোশাক পড়ে পকোড়া ভেজে বিক্রি করতে দেখা গেল।

এক ছাত্রী বলেন, ‘পকোড়া যােজনায় মােদিজি আমাদের যে নয়া কর্মসংস্থান দেখিয়েছে সেজন্য তাঁকে এখানে স্বাগত জানাতে এসেছি। মােদির সভায় আমরা পকোড়া বেচতে চাই’।

সােশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে একটি ছাত্রী চিৎকার করে বলছেন ‘ইঞ্জিনিয়ারদের তৈরি পকোড়া খেয়ে যান। বিএ, এলএলবিরা পকোড়া বিক্রি করছেন’।

চলতি বছর জানুয়ারি মাসে প্রধানমন্ত্রী এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, যারা পকোড়া বিক্রি করে দিনে ২০০ টাকা আয় করছেন তাদের বেকার বলা যায় না।

এ বছর প্রকাশিত একটি রিপাের্টে দেখা গেছে দেশের বেকারের হার বেড়েছে ৬.১ শতাংশ। যা ১৯৭০ সালের পরে সর্বোচ্চ হার বলে মনে করা হচ্ছে।