‘ শীঘ্রই জম্মু-কাশ্মীরের বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু হবে ‘, জানালেন রাজীব কুমার 

Written by SNS June 3, 2024 5:01 pm

দিল্লি, ৩ জুন –  ২০১৪ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বরে শেষ বার বিধানসভা ভোট হয়েছিল অবিভক্ত জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে। তার এক দশক পরেও বিধানসভা নির্বাচন হয়নি জম্মু ও কাশ্মীরে। জম্মু ও কাশ্মীরের বিধানসভা ভোট নিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে জবাব দিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার। তিনি জানিয়েছেন, শীঘ্রই জম্মু-কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচনের আয়োজন করা হবে।প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো ২০২৪ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে। 

২০১৯ সালের অগস্টে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদ বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বিলোপ করেছিল মোদি সরকার। যদিও তার তিন বছর আগেই  রাজনৈতিক অচলাবস্থার কারণে ভেঙে দেওয়া হয় বিধানসভা।এখনও পর্যন্ত সেখানে আর বিধানসভা ভোট হয়নি। ২০১৯ সালের পর এই প্রথম ভোট হল কাশ্মীরে। পাঁচ দফাতে সেখানকার পাঁচ আসনে ভোটগ্রহণ হয়েছে। 
 
সোমবার সাংবাদিক বৈঠক করেন রাজীব কুমার । এদিন নির্বাচন সংক্রান্ত একাধিক প্রশ্নের জবাব দেওয়ার সময় ওঠে কাশ্মীরের বিধানসভা ভোটের প্রসঙ্গটিও। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো ২০২৪ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে।  কিছু দিন আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও জানিয়েছেন, জম্মু-কাশ্মীরে বিধানসভা ভোট শীর্ষ আদালতের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই হবে। তবে কবে সেখানে ভোট হবে সেসব দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা করা হয়নি ।
 
এর আগে গত শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এক সংবাদকে সংস্থাকে জানান,  ৩০ সেপ্টেম্বরের আগেই জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন হবে। তিনি জানিয়েছেন, বিধানসভা নির্বাচন মিটলে জম্মু ও কাশ্মীরে রাজ্যের মর্যাদা ফেরানোর প্রক্রিয়াও শুরু হবে। অনগ্রসর শ্রেণিগুলির সমীক্ষা, বিধানসভা এবং লোকসভা কেন্দ্রগুলিতে আসন পুনর্বিন্যাস বা ‘ডিলিমিটেশন’— সব আপাতত পরিকল্পনামাফিক চলছে। আসন পুনর্বিন্যাস প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়েছে।নয়তো  শ্রেণি অনুযায়ী সংরক্ষণ দেওয়া সম্ভব হত না। কাশ্মীরে লোকসভা ভোটও হয়ে গিয়েছে। বাকি শুধু বিধানসভা ভোট, তা-ও হয়ে যাবে। সুপ্রিম কোর্ট যে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে, তার আগেই ওই প্রক্রিয়া আমরা শেষ করব।’’  উল্লেখ্য, গত ১১ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছিল ২০২৪ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন করাতে হবে।
 

সোমবার মুখ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার জানিয়েছেন, কাশ্মীরে ভোটের হার এ বার তাৎপর্যপূর্ণভাবে বেড়েছে। তিনি বলেন, ‘‘জম্মু ও কাশ্মীরে আমরা খুব শীঘ্র বিধানসভা নির্বাচন আয়োজন করতে চলেছি। সেখানকার মানুষ লোকসভায় যে হারে মানুষ ভোট দিয়েছেন, তাতে আমরা উৎসাহিত।’’ তিনি জানিয়েছেন, এ বার জম্মু ও কাশ্মীর মিলিয়ে মোট পাঁচটি লোকসভা আসনে ভোটের হারে নজির তৈরি হয়েছে। জম্মুতে ৫৮.৫৮ শতাংশ এবং উপত্যকা অঞ্চলে ৫১.০৫ শতাংশ ভোট পড়েছে।