মমতার নির্দেশে অভিষের পরামর্শে আপের অনশন মঞ্চে তৃণমূল সাংসদের প্রতিনিধি দল

Written by SNS June 25, 2024 1:47 am
নিজস্ব প্রতিনিধি :  শারীরিক অবস্থার প্রতি গুরুত্বহীনতা! নিজ অনশণ চালিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর দিল্লির মন্ত্রী তথা আপ আদমি পার্টি বা আপ -এর নেত্রী অতিশী মারলেনা সিং। অনশনের চার দিনের মাথাতেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন নেত্রী। চিকিৎসকেরা সোমবার অতিশীকে অবিলম্বে হাসপাতালে ভর্তি করানোর সুপারিশ করেছেন। যদিও হরিয়ানার বিজেপি সরকার দিল্লিকে প্রয়োজনীয় জল না ছাড়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবেন তিনি। এই পরিস্থিতিতে সোমবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে এবং তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের পরামর্শে তৃণমূলের মহিলা সাংসদগণ – মহুয়া মৈত্র, প্রতিমা মণ্ডল এবং সাগরিকা ঘোষ অনশনরত অতিশীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন। এদিন অতিশীর সাথে দেখা করে তাঁর পাশে থাকার বার্তাই দিলেন সাগরিকারা। পাশাপাশি নিজ শারীরিক অবস্থার দিকেও নজর দেওয়ার উপদেশ দিলেন। তৃণমূলের প্রতিনিধি হয়ে মহুয়া, সাগরিকা এবং প্রতিমা অতিশীর সাহস এবং মনোবল বৃদ্ধি করলেন।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দিল্লির জলসঙ্কট সমস্যার সমাধানের দাবি জানিয়ে শুক্রবার থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য অনশনে বসেছেন মন্ত্রী অতিশী। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন শাসকদল আপের একাধিক নেতা-নেত্রী। অতিশীর এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন জেলবন্দি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়াল। জেল থেকে দেওয়া এক বার্তায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী শুক্রবার বলেন, “তৃষ্ণার্তকে জল দেওয়া আমাদের সংস্কৃতি। এই নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়।” অনশনের চতুর্থ দিনের মাথায় অতিশীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, শরীরে ক্ষতিকারক কিটোনের মাত্রা বিপজ্জনক ভাবে বেড়ে গিয়েছে। তাই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো প্রয়োজন। কিন্তু নিজ সিদ্ধান্তে অটল অতিশী। সোমবার তিনি বলেন, “২৮ লক্ষ দিল্লিবাসী জল না পাওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাব। বিজেপি পরিচালিত হরিয়ানা সরকার গত ৩ সপ্তাহ ধরে দিল্লিকে ১০০ এমজিডি -এর কম জল দিচ্ছে।” ঘটনার সূত্রপাত প্রবল গরম থেকেই। মাত্রাতিরিক্ত গরমের কারণে দিল্লিতে তীব্র জলসঙ্কট দেখা দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি শাসিত প্রতিবেশী রাজ্য হরিয়ানার থেকে বাড়তি জল চেয়েছিল দিল্লি সরকার। এই সূত্র ধরে মামলা হয় সুপ্রিম কোর্টেও। তার মধ্যেই অতিশী দিল্লির জলসঙ্কট মেটানোর দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লেখেন। সেই চিঠিতে তিনি জানান, যদি ২১ জুনের মধ্যে দিল্লির জলসঙ্কট না মেটে তবে তিনি অনির্দিষ্ট কালের জন্য অনশনে বসবেন। দাবি না মেটায় কথা মতো অনশনে বসেছেন তিনি। সোমবার তাঁর সাথেই দেখা করলেন তৃণমূলের মহিলা সাংসদগণ।