Home ভারত ঋণ শোধে ‘বাধা’ দিয়েছে কর্তৃপক্ষই! পিএনবিকেই প্রতারক নীরব মোদির ‘ধমক’

ঋণ শোধে ‘বাধা’ দিয়েছে কর্তৃপক্ষই! পিএনবিকেই প্রতারক নীরব মোদির ‘ধমক’

89
0
SHARE
ঋণ শোধে ‘বাধা’ দিয়েছে কর্তৃপক্ষই! পিএনবিকেই প্রতারক নীরব মোদির ‘ধমক’

প্রতারণা কান্ডে পাঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্ককেই দায়ী করলেন দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া প্রতারক ব্যবসায়ী নিরব মোদী। তাঁর অভিযোগ পিএনবি কর্তৃপক্ষের হইচইয়ের জন্যই তার বকেয়া শোধ করার যাবতীয় দরজা বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

ঋণ শোধে ‘বাধা’ দিয়েছে কর্তৃপক্ষই। প্রায় ১১,৫০০ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে দেশে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে নীরব মোদি। তাঁর দাবি যে পরিমাণ ঋণের কথা বলা হয়েছে, বাস্তবে তার পরিমাণ অনেক কম।

ইতিমধ্যেই নীরব মোদি চিঠি দিয়েছেন পিএনবি কর্তৃপক্ষের কাছে। চিঠিতে নীরব মোদির দাবি, ব্যাঙ্কে তাঁর বকেয়ার পরিমাণ ৫ হাজার কোটির কম। তাঁর বিভিন্ন সংস্থা এবং বাসভবনে তল্লাশির জন্য সংবাদমাধ্যমকেই দায়ী করেছেন নীরব মোদি।

তাঁর দাবি সংবাদমাধ্যমের উন্মত্ততার জন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এপ্রসঙ্গে তার দুই সংস্থা ফায়ারস্টার ইন্টারন্যাশানাল এবং ফায়ারস্টার ডায়মন্ড ইন্টারন্যাশানাল সংস্থায় তদন্তকারী সংস্থার অভিযানের কথা উল্লেখ করেছেন নীরব মোদি।

এই অভিযানের ফলে ব্যাঙ্কের বকেয়া শোধ করার প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে বলে চিঠিতে লিখেছেন এই পলাতক। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই তিনি তাঁর পরিবার সমেত দেশ ছাড়েন।

চিঠিতে নীরব মোদি আরও দাবি করেছেন, ঋণ শোধের ব্যাপারে তিনি চিঠি দিয়েছিলেন ১৩ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু তাকে উপেক্ষা করে ১৫ ফেব্রুয়ারি জনসমক্ষে এসম্পর্কে ঘোষণা করা হয়। এর ফলে তাঁর এবং তাঁর সংস্থার নাম ও ব্যবসা ধাক্কা খেয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এই পলাতক হীরক ব্যবসায়ী।